সিম্পন কলেজে বুড্ডিস্ট স্ট্যাডিজ অনুমোদন

যুক্তরাষ্ট্রের আইওয়া অঙ্গ রাজ্যের ইন্ডিয়ানোলার একটি কলেজে বুড্ডিস্ট স্ট্যাডিজকে তাদের অধ্যায়নের তালিকাভুক্ত করেছে কলেজ কর্তৃপক্ষ।

আমেরিকার আইওয়াতে অবস্থিত সিম্পসন কলেজ একটি বেসরকারী লিবারেল আর্ট কলেজ। তারা ঘোষণা করেছে ২০২২ সাল থেকে কলেজে নতুন করে বুড্ডিস্ট স্ট্যাডিজকে তাদের চলমান প্রোগ্রামের অংশ হিসেবে যুক্ত করেছে।

Callan
Maeve Callan

বুড্ডিস্ট স্ট্যাডিজের জন্য রবার্ট এইচএন হো ফ্যামিলি ফাউন্ডেশন প্রোগ্রামের অনুদানে নতুন করে সহকারী অধ্যাপক এবং সহযোগী অধ্যাপক নামে দুটি পদ সৃষ্টি করা হয়েছে। আমেরিকান কাউন্সিল অফ লার্নড সোসাইটিস (ACLS) দ্বারা পরিচালিত এই বুড্ডিস্ট স্ট্যাডিজের জন্য কলেজটি চলতি মাসে নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার কথা জানিয়েছে।

কলেজের একাডেমিক ডিন জন ওয়েল বলেছেন, ”বুড্ডিস্ট স্ট্যাডিজের জন্য অনুদানটি প্রফেসর জন কারা শিল্ডস গত বছর প্রস্তাব করেছিলেন। মূলত এটি একটি ছোট গবেষণা তহবিল, প্রাথমিকভাবে কিছু কোর্স ডেভেলপমেন্ট ফান্ডিং এর কাজ ‍শুরু হয়েছে।”

ওয়েল বলেন, ”বুড্ডিস্ট স্ট্যাডিজ প্রোগ্রামটি তৈরি করার কাজটি ২০০০ সালে ACLS-তে প্রাথমিক অনুদানের আবেদনের মাধ্যমে শুরু হয়েছিল। প্রফেসর শিল্ডস এবং প্রফেসর ক্যালান ছিলেন এই উদ্যোগের প্রধান কারিগর।”

এর আগে আমেরিকার কারেনে প্রতিষ্ঠত ওহিও বৌদ্ধ সমিতি একটি ক্যাথলিক চার্চকে বৌদ্ধ বিহার হিসেবে ব্যবহারের অনুমতি পেয়েছিল।

ইন্ডিয়ানোলার জনসংখ্যা প্রায় ১৫,৮৩৩ যার বেশিরভাগই বৌদ্ধ। সিম্পন কলেজের এই উদ্যোগ একটি স্থিতিশীল বৌদ্ধ মন্দির এবং সম্প্রদায় কেন্দ্রীয়-আইওয়া শহরে একটি উল্লেখযোগ্য ল্যান্ডমার্ক হবে। কারেনের জনগণ বেশিরভাগ প্রধানত দক্ষিণ-পূর্ব মিয়ানমার থেকে আসা একটি অংশ। এখানে বসবাসকারী বেশিরভাগই বর্তমান মিয়ানমারে চলমান গৃহযুদ্ধ থেকে উদ্বাস্তু হিসেবে ২০০৬-০৭ সালে এসেছিলেন।

Jon Kara Shields
Jon Kara Shields

অধ্যাপক জন কারা শিল্ডস আশা প্রকাশ করে বলেন, “সময়ই সব বলে দিবে, তবে আমরা আশা করছি আমেরিকার সম্প্রদায় এবং কারেনে বসবাসকারী বৌদ্ধ প্রতিবেশীদের মধ্যে পারস্পরিক সুবিধার একটি ইতিবাচক সম্পর্ক গড়ে ওঠবে।

কলেজ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ” ক্যালান এবং শিল্ডস দ্বারা গঠিত বুড্ডিস্ট স্ট্যাডিজ, সিম্পন কলেজের ধর্ম বিভাগকে প্রসারিত করতে অনেক সাহায্য করবে।”

মূলত, ক্যালান এবং শিল্ডস উভয়েই পশ্চিমা ঐতিহ্যে শিক্ষিত দুই নারী। ক্যালান আয়ারল্যান্ডের ধর্মের ইতিহাসের উপর গবেষণা করেন এবং শিল্ডস খ্রিস্টান নীতিশাস্ত্র, নৃতত্ত্বে দক্ষতা এবং ধর্মে নারী ও লিঙ্গ বিষয়ে পড়াশোনা করেন।

শিল্ডস বলেন, “প্রোগ্রামের অধিনে বৌদ্ধধর্মের প্রাথমিক, মধ্যবর্তী এবং উন্নত অধ্যয়নের কোর্স শেখাবে, সেইসাথে ফাউন্ডেশনের প্রোগ্রামে অবদান রাখবে, পরবর্তীতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বিশ্ব ধর্মের পরিচিতি এবং আদিবাসী ধর্মের উপর কোর্স অফার করবে।”

তিনি আরো বলেন, “তারা মৃত্যু এবং শোক অনুশীলনের সাংস্কৃতিক বোঝাপড়া, বৌদ্ধ দর্শন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বৌদ্ধধর্মের বিস্তার, বৌদ্ধধর্ম কীভাবে খেলাধুলার পারফরম্যান্স বা সাইকোথেরাপির দৃষ্টিভঙ্গিকে প্রভাবিত করেছে, বৌদ্ধ শিল্প, বৌদ্ধধর্ম এবং অক্ষমতা অধ্যয়নের উপর একটি কোর্স শেখাতে পারে এখানে।”

এদিকে সিম্পন কলেজের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছে ইন্ডিয়ানোলার বৌদ্ধ অধিবাসিরা।

 

আরো পড়ুন>>

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!