লাদাখের ১০০০ প্রতিবন্ধীর মাঝে কৃত্রিম যন্ত্র বিতরণ করেছেন বৌদ্ধ ভিক্ষু

লাদাখের ১০০০ প্রতিবন্ধীর মাঝে কৃত্রিম যন্ত্র বিতরণ করেছেন বৌদ্ধ ভিক্ষু: সমাজসেবী বৌদ্ধ ভারতীয় শ্রদ্ধেয় বৌদ্ধ সন্ন্যাসী ভিক্ষু সংঘসেনা গত মাসে অন্তত ১০০০ জন প্রতিবন্ধী মানুষের মাঝে কৃত্রিম যন্ত্রপাতি ও তাদের প্রয়োজনীয় ডিভাইস বিতরণ করেছেন। জুনের শুরুর দিকে উত্তর ভারতের লাদাখে Third Free Mobility Camp এর অংশ হিসাবে প্রতিবন্ধীদের মাঝে এই যন্ত্র বিতরণ সম্পন্ন করেন তিনি।

মুম্বাই এর রত্ন নিধি চ্যারিটেবল ট্রাস্ট এবং রোটারি ইন্টারন্যাশনাল ডিস্ট্রিক্টস 3141 এবং 3070-এর সহযোগিতায় করেন যন্ত্র বিতরণের কাজে। লাদাখ এর মহাবোধি ইন্টারন্যাশনাল মেডিটেশন সেন্টার (MIMC) যন্ত্র বিতরণের জন্য একটি অনুষ্ঠান আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, ভারতীয় সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে লাদাখে নিয়োজিত লেফটেন্যান্ট গভর্নর আর কে মাথুর।

মহাবোধি ইন্টারন্যাশনাল মেডিটেশন সেন্টার (MIMC) ১৯৮৬ সালে প্রতিষ্ঠিত একটি বৌদ্ধধর্মীয় সংগঠন। তখন থেকেই লাদাখের জনগণকে শিক্ষা, ধ্যান, পরিবেশগত উদ্যোগ এবং বিনামূল্যে চিকিৎসা পরিষেবার মতো বিভিন্ন মানবিক পরিষেবা প্রদান করে আসছে সংগঠনটি।

শ্রদ্ধেয় ভিক্ষু সংঘসেনা মিডিয়ার সাথে শেয়ার করা এক বার্তায় বলেন, “আমাদের মহাবোধি করুণা চ্যারিটেবল হাসপাতাল অসামান্য চিকিৎসা পরিষেবা এবং সহায়তা প্রদান করছে, সেইসাথে লাদাখের প্রত্যন্ত অঞ্চলে বিনামূল্যে ক্যাম্পাস করে এবং মোবাইল মেডিকেল ক্যাম্পের আয়োজন করছে।”

তিনি আরো বলেন, ”মহাবোধি ইন্টারন্যাশনাল মেডিটেশন সেন্টার এবং রত্ন নিধি চ্যারিটেবল ট্রাস্ট (মুম্বাই) এর আগে ২০১২ ও ২০১৭ সালে লাদাখের মহাবোধি করুণা চ্যারিটেবল হাসপাতালে দুটি বড় আকারের অর্থোপেডিক ক্যাম্পের আয়োজন করেছিল।”

লাদাখের বৌদ্ধ জনগণ

রত্ন নিধি চ্যারিটেবল ট্রাস্ট এবং রোটারি ইন্টারন্যাশনাল ডিস্ট্রিক্টস 3141 এবং 3070-এর পৃষ্ঠপোষকতায় এই বছর (২০২২) আবারও লাদাখে তৃতীয় ফ্রি মোবিলিটি ক্যাম্পটি আয়োজন করা হয়। ১২ জুন থেকে চলমান ক্যাম্পটি মহাবোধি ইন্টারন্যাশনাল মেডিটেশন সেন্টারে চলছে। এই বছর আমরা পায়ের বন্ধনী, ক্রাচ, কৃত্রিম অঙ্গ, হুইলচেয়ার এবং শ্রবণযন্ত্র সহ বিভিন্ন কৃত্রিম যন্ত্র বিতরণ করার জন্য একসাথে যুক্ত হয়েছি। আমরা ১০০০ রোগী এবং অক্ষম ব্যক্তির মাঝে এইসব বিতরণ করা হয়েছে।”

শ্রদ্ধেয় ভিক্ষু সংঘসেনা লাদাখের অলাভজনক প্রতিষ্ঠান মহাবোধি ইন্টারন্যাশনাল মেডিটেশন সেন্টার (MIMC) এর আধ্যাত্মিক পরিচালক। এছাড়াও তিনি মহাকরুণা ফাউন্ডেশন, সেভ দ্য হিমালয় ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা এবং ইন্টারন্যাশনাল নেটওয়ার্ক অফ এনগেজড বুড্ডিস্ট এর (INEB) একজন আধ্যাত্মিক উপদেষ্টা।

লেফটেন্যান্ট গভর্নর মাথুর শ্রদ্ধেয় ভিক্ষুর অবদানের জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। লাদাখের প্রতিবন্ধি মানুষের পাশে থাকার জন্য ভিক্ষু সংঘসেনা এবং MIMC কে তিনি ধন্যবাদ জানান। মাথুর, প্রত্যন্ত অঞ্চলের সুবিধাবঞ্চিত সম্প্রদায়ের শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষার সুযোগ প্রদানের জন্য এবং নিঃস্ব বয়স্ক ব্যক্তিদের জন্য একটি কেয়ার হোম প্রতিষ্ঠার জন্য MIMC-এর প্রশংসা করেন।

মাথুর তার বক্তৃতায়, মূলধারার সমাজে প্রতিবন্ধী এবং ভিন্নভাবে অক্ষম ব্যক্তিদের সক্রিয়ভাবে স্থান দেওয়া এবং অন্তর্ভুক্ত করার গুরুত্বের উপর জোর দেন। তিনি প্রতিবন্ধী শিশুদের মূলধারার স্কুলে একীভূত করার জন্য লাদাখ প্রশাসন এবং স্থানীয় কাউন্সিলের প্রচেষ্টার কথা উল্লেখ করেন। তিনি লাদাখের সমস্ত প্রতিবন্ধী মানুষের সুবিধার জন্য MIMC সহ পাশাপাশি রোটারি ইন্টারন্যাশনাল এবং রত্ন নিধি চ্যারিটেবল ট্রাস্টের সমর্থন অব্যাহত রাখার জন্য অনুরোধ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!