রাশিয়ার উরাল অঞ্চলে একমাত্র বৌদ্ধ বিহারটি ধ্বংস করা হয়েছে

আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক:

রাশিয়ার ইউরাল ফেডারেল জেলার একমাত্র বৌদ্ধ মঠ শেডরুব লিং। এটি রাশিয়ার ইউরোপীয় এবং এশীয় অঞ্চল সীমান্তে অবস্থিত। বাণিজ্যিক খনির স্বার্থে রাস্তা তৈরি করার জন্য চলতি বছরের মার্চ মাসের শেষের দিকে ভেঙ্গে ফেলা হয়েছে বৌদ্ধ বিহারটি। দুর্গম ও মনোরম এলাকায় মঠটির ধ্বংস এই অঞ্চলের বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের জন্য একটি বড় ক্ষতি।

শেডরুব লিং (তিব্বতীয় অধ্যয়ন ও ধ্যান সাধনার স্থান) ছিল উরাল ফেডারেল জেলার সার্ভারডলভস্ক অঞ্চলের কাচকানার পর্বতে অবস্থিত একটি বৌদ্ধ বিহার। এটি ১৯৯৫ সালে লামা তেনজিন ডকচিট (মিখাইল স্যানিকভ) এটি প্রতিষ্ঠা করেন। ধ্বংসের আগে, এখানে দুটি স্তূপ, একটি নির্বাণ স্তূপ, ছয়টি অতিরিক্ত স্তূপ, একটি মন্দির ভবন, শাক্যমুনি বুদ্ধ এবং মিলারেপার মূর্তি, রিট্রিট রুম, একটি লাইব্রেরি এবং থাকার ঘর অন্তর্ভুক্ত ছিল।

শেডরুব লিং এর বৌদ্ধ মুর্তি
শেডরুব লিং বৌদ্ধ বিহার ও মুর্তি

২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারিতে মঠটির ধ্বংসের তথ্য প্রথমবারের মতো প্রকাশ করা হয়েছিল। একই বছরে, রাশিয়ান ইস্টিল ও ভেনাডিয়াম খনিজ অনুসন্ধ্যানি প্রতিষ্ঠান ইভরাজ সেই এলাকার বৌদ্ধ সম্প্রদায়কে কাচকানার থেকে প্রায় তিন কিলোমিটার দূরে মাউন্ট মোখনাটকাতে চলে যেতে বলেন এবং স্থানান্তরে সাহায্য করার প্রতিশ্রুতি দেন। বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের সদস্যরা দাবী করেন যে তাদের বিহারটি পরিবহনের সুযোগ ছিল না। ২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারীর শেষে, সার্ভারডলভস্ক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ মঠের ধ্বংস স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নেয় এবং মঠটি সংরক্ষণ করার বিবেচনায় ওয়ার্কিং কমিটি গঠন করে।

২০২০ সালে খনন পরিচালনা প্রতিষ্ঠান ইভরাজ, সার্ভারডলভস্ক সরকার এবং বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের মধ্যে একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়, যেখানে বলা হয়েছিল বৌদ্ধরা ১ নভেম্বর ২০২০- এর মধ্যে কোস্যা গ্রামে চলে যাবে, তবে খনন প্রতিষ্ঠানের সাথে সম্মত সময়সূচী অনুসারে বৌদ্ধ স্তুপগুলো ব্যবহার ও দেখা-শোনা করতে পারবে। কিন্তু ২০২০ সালের নভেম্বরে, লামা তেনজিন ডকচিট তার মঠ ত্যাগ করতে অস্বীকার করেছিলেন বলে অভিযোগ তুলে সার্ভারডলভস্ক সরকার। পরে সেই অঞ্চলের বৌদ্ধ সম্প্রদায় ঘোষণা করে যে ইভরাজের সাথে চুক্তিটি বাতিল হয়েছে।

শেডরুব লিং বৌদ্ধ বিহার
শেডরুব লিং বৌদ্ধ বিহার ও মুর্তি

শেডরুব লিং বৌদ্ধ সম্প্রদায় তাদের সোশ্যাল মিডিয়া পেইজগুলোতে বলেছে যে “নিঃশব্দে” মঠটি ভেঙে ফেলার প্রচেষ্টায় ধ্বংসের তথ্য মিডিয়া থেকে সরানো হয়েছে। তাদের মতে, “রাশিয়ার জাতীয় ও বৈশ্বিক পরিস্থিতি যতটা উত্তপ্ত এখন এই কাজটি করা সুবিধাজনক সময় মনে করেছে কর্তৃপক্ষ।” বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের পক্ষ থেকে আরও বলা হয়েছে যে তাদের মঠ পরিদর্শন করতে এই অঞ্চলে প্রবেশ করতে নিষেধ করা হয়েছে, যা পূর্বের চুক্তি এবং আশ্বাসের বিপরীত।

বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের প্রতিনিধিরা জানিয়েছেন, তারা কখনই কোয়ারির উন্নয়নে হস্তক্ষেপ করেননি এবং তারা কাচকানার সিটি কোর্টে একটি দাবি দায়ের করেছেন। উপরন্তু, তারা সমস্ত সমর্থকদের উরাল অঞ্চলের একমাত্র বৌদ্ধ বিহারটি ধ্বংস করা থেকে বিরত রাখতে এবং সংরক্ষণ করার জন্য কর্তৃপক্ষ সহ সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলিকে চিঠি লিখতে বলেছিল।

ধ্বংস করা বৌদ্ধ বিহার
ধ্বংস করা বৌদ্ধ বিহার

গত ২৮ মার্চ, শেডরুব লিং বৌদ্ধ সম্প্রদায় ফেসবুকে একটি নতুন আবেদন পোস্ট করেছে, যেখানে বলা হয়েছে তারা তাদের “সন্তান” হারানোর জন্য গভীরভাবে দুঃখিত। তারা সমস্ত বন্ধু এবং সমর্থকদের আইন সম্পর্কে সজাগ এবং অন্য লোকেদের অপমান বা আঘাত না করার জন্য অনুরোধ জানিয়েছে।

ধ্বংস করা বৌদ্ধ বিহার
ধ্বংস করা বৌদ্ধ বিহার

সম্প্রদায়ের নেতাদের একজন বলেন, এই  ধ্বংসের চিত্রগুলো আমাদের জন্য খুবই সাধারণ, যুগ যুগ ধরে মানব ইতিহাসে বৌদ্ধরা এমন চিত্র অনেক দেখেছে। বারবারই বৌদ্ধদের উপর আঘাতটা আসে। এটি কেবল আইন ও প্রয়োজনের কারনে নয় এটি সংসারের অস্থায়ীত্ব প্রকৃতির কথাও মনে করিয়ে দেয়। অর্থাৎ যার শুরু আছে তার শেষও একদিন আছে সেটি আমাদের মনে করিয়ে দেয়। সব কিছুর পরও বৌদ্ধদের ত্রিরত্নের প্রতি অকৃত্রিম বিশ্বাস কখনই ভেঙে ফেলা যাবে না।

Evraz হল একটি যুক্তরাজ্য ভিত্তিক রাশিয়ান সংখ্যাগরিষ্ঠ মালিকানাধীন, বহুজাতিক ইস্পাত প্রস্তুতকারক এবং খনির কোম্পানি।

 

আরো পড়ুন>>

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!