আয়ারল্যান্ডে প্রথম জেন বৌদ্ধ সেন্টার প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

আয়ারল্যান্ডে প্রথম জেন বৌদ্ধ সেন্টার প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে

আয়ারল্যান্ডে প্রথম জেন বৌদ্ধ সেন্টার প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। ডাবলিনে অনুষ্ঠানিকভাবে প্রতিষ্ঠিত বিহারটি মূলত আইয়ারল্যান্ডের জেন বৌদ্ধধর্মাবলম্বীরা করেছেন। জেন বৌদ্ধ পুরোহিত রেভারেন্ড মায়জান কোদো কিলরয়, ডাবলিন জেন সেন্টারে ধর্ম যাজক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন, যিনি একজন আইরিশ।

ডাবলিন শহরে বসবাসরত জেন বৌদ্ধদের জন্য বিহারটি স্থিতিশীলতা আনবে বলে স্থানীয়দের অনেকেই মনে করছেন। এর আগে ডাবলিনের বৌদ্ধরা অনেক বছর ধরে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের অভাবে ভোগেছে।

কিলরয় সাম্প্রতিক একটি সাক্ষাত্কারে বলেছেন, “এতোদিন ধর্মীয় কাজ সারতে আমাদের এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় যেতে হয়েছে কারণ ডাবলিন কর্তৃপক্ষ আমাদের স্থায়ী ধর্ম অনুশীলনের স্থান গড়ে তুলতে দেয়নি। অবশেষে, আমাদের এই জায়গাটি ইজারা দেওয়ার জন্য কর্তৃপক্ষ সম্মত হয়েছে, আশা করছি এখানে আমরা দীর্ঘ দিন থাকতে পারবো।”

আয়ারল্যান্ডে প্রথম জেন বৌদ্ধ সেন্টার প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে
Rev. Myōzan Kōdō Kilroy

কিলরয় আয়ারল্যান্ড জেন বৌদ্ধধর্ম সংঘের নেতৃত্ব দেন, তিনি একানকার বৌদ্ধধর্মের প্রতিষ্ঠাতা গুরু। ২০১৬ সালে এই মহান জেন গুরু ম্যাপেল লেক, মিনেসোটাতে অনুষ্ঠিত Sōtō Zen Buddhist Association (SZBA) সম্মেলনে বৌদ্ধধর্মে দীক্ষাগ্রহণ অনুষ্ঠান সম্পন্ন করেন।

কিলরয় আইরিশ বৌদ্ধ ইউনিয়নের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এবং বৌদ্ধ ধর্মের প্রতিনিধিত্বকারী ডাবলিন সিটি ইন্টারফেইথ ফোরামের মাধ্যমে বৌদ্ধধর্ম প্রসারে কাজ করে যাচ্ছেন।

সাম্প্রতিক পরিসংখ্যান অনুসারে, আয়ারল্যান্ডে আনুমানিক ১০,০০০ বৌদ্ধ জনগোষ্টি রয়েছে, যা ২০১১ সালের তুলনায় ১১ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে এবং ২০০৬ সালের আদমশুমারি থেকে ৪৩ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে৷ অনেকেই মনে করেন এই সংখ্যা সরকারি হিসেবে একটু কম।

ডাবলিনের জেন কেন্দ্র ছাড়াও, তিব্বতি থেরাবাদ ঐতিহ্যের প্রতিনিধিত্বকারী আরও কয়েকটি বৌদ্ধ কেন্দ্র এবং মন্দির রয়েছে। তবে আইয়ারল্যান্ডের বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে ছিটিয়ে বৌদ্ধদের অন্যান্য ঐতিয্যে বিশ্বাসীও রয়েছে বলে জানা গেছে।

আয়ারল্যান্ডে প্রথম জেন বৌদ্ধ সেন্টার প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে

আরো পড়ুন>>

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!