সরকারী বৌদ্ধ প্রতিনিধি দলের রাশিয়া ভ্রমণ

বৌদ্ধ সংগঠন এবং শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানের সাথে সহযোগিতা প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে ভারত থেকে একটি সরকারী প্রতিনিধি দল রাশিয়া সফর করেছে। প্রতিনিধিদলে ছিলেন, ইন্দিরা গান্ধী ন্যাশনাল সেন্টার ফর আর্টস, ইন্টারন্যাশনাল সেন্টার ফর কালচারাল স্টাডিজ, ইন্টারন্যাশনাল বৌদ্ধ কনফেডারেশন এবং এশিয়ান বৌদ্ধ কনফারেন্স ফর পিসের সদস্যবৃন্দ।

ভ্রমনরত প্রতিনিধিগণ ইতোমধ্যে মস্কো এবং সেন্ট পিটার্সবার্গে তাদের কর্মসূচি শুরু করেছন। এরপর চিটা, বুরিয়াতিয়া, কাল্মিকিয়া এবং টুভা পরিদর্শন করার পরিকল্পনা রয়েছে।

পূজনীয় দালাই লামা’র রাশিয়া, মঙ্গোলিয়া, এবং কমনওয়েলথ ভুক্ত সদস্য রাষ্ট্রের অবৈতনিক প্রতিনিধিগণ এবং কাল্মইক জনগনের নেতা (প্রধান লামা), ট্যালে টুলকো রিনপোচে ভ্রমণরত প্রতিনিধিদলকে যথাযত মর্যদায় আতিতীয়তা করেন।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রতিনিধি দল
সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রতিনিধি দল

রাশিয়ার ফেডারেশনে ভারতীয় রাষ্ট্রদূত শ্রী ডিবি ভেঙ্কটেশ ভার্মার আয়োজনে ১৫ সেপ্টেম্বর মস্কোতে ভারতীয় দূতাবাসে একটি সংবর্ধনায় অংশ নিয়েছিল দলটি।  সংবর্ধনায় ১৯তম কুশোক বকুলা রিনপোচে (১৯১৭-২০০৩), লাদাখের অন্যতম বিখ্যাত লামা, যিনি ১৯৯০-২০০০ সাল পর্যন্ত মঙ্গোলিয়ায় ভারতের রাষ্ট্রদূত হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন এবং মঙ্গোলিয়া এবং রাশিয়ায় বৌদ্ধধর্মের পুনরুজ্জীবনে সহায়তা করেছিলেন তার একটি নতুন জীবনী বই এর মোড়ক উন্মোচন করেন। দূতাবাস কর্তৃক কমিশন করা দ্য আর্কিটেক্ট অফ মডার্ন লাদাখ এবং জীবনী বই দুটি লিখেছিলেন এবং রাশিয়ান ভাষায় অনুবাদ করেছিলেন সোনম ওয়াংচুক শাকস্পো।

প্রতিনিধিদলের সফরের সময় আরেকটি উল্লেখযোগ্য ঘটনা হল ইন্দিরা গান্ধী ন্যাশনাল সেন্টার ফর আর্টস, ভারতীয় সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় এবং রাশিয়ার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর। ১৪ সেপ্টেম্বর স্বাক্ষরিত একটি চুক্তির মাধ্যমে, উভয় দেশ শিক্ষা এবং সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রে এবং বিশেষত বৌদ্ধ দর্শন, বৌদ্ধ বিজ্ঞান, জ্যোতিষশাস্ত্র, চিকিৎসা এবং চারুকলার ক্ষেত্রে সহযোগিতার দিকে নজর দিচ্ছেন বলে জানা গেছে।

ভারতীয় দলের পক্ষ থেকে, ইন্দিরা গান্ধী ন্যাশনাল সেন্টার অফ আর্টসের সদস্য সচিব ড. সচ্চিয়ানন্দ যোশি স্বাক্ষর করেন। একাদিক রাশিয়ান প্রতিষ্ঠানের পক্ষে ও কাল্মইক কেন্দ্রীয় বৌদ্ধ মন্দির এবং কাল্মইক এর জনগণের পক্ষে স্বাক্ষর করেন ট্যালু টোলকো রিনপোচে।

জীবনী বই এর মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রতিনিধি দল
জীবনী বই এর মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রতিনিধি দল

মস্কো পর ভারতীয় সরকারী প্রতিনিধি দল ভ্রমণ করেন সেন্ট পিটার্সবার্গ। সেখানে তারা ১৩তম দালাই লামা থাপটেন গিয়াটসোর (১৮৭৬-১৯৩৩) নির্দেশনায় ১৯০৯-১৯১৫ সালে প্রতিষ্ঠিত উত্তর-পশ্চিম রাশিয়ার প্রথম বৌদ্ধ মন্দির Datsan Gunzechoinei পরিদর্শন করেন।

Datsan Gunzechoinei
Datsan Gunzechoinei মন্দির পরিদর্শন

Datsan Gunzechoinei পরিদর্শনের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করে সোনম ওয়াংচুক শাকসপো লিখেছেন যে কুশোক বকুলা রিনপোচে ছিলেন সেন্ট পিটার্সবার্গের মন্দিরের প্রথম উচ্চপদস্থ বৌদ্ধ লামা।

দৃষ্টি আকর্ষণ>> আপনার এলাকার যে কোন বৌদ্ধধর্মীয় খবর প্রচার করতে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন।

যোগাযোগ: E-mail: shimulios@gmail.com

মোবাইল/What’s App: 01829-628378

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!