যোগদান করুন সুইডেনের বৌদ্ধ কনফারেন্সে

ষষ্ঠ আন্তর্জাতিক নর্ডল্যান্ড বুড্ডিজম সম্মেলনের সময় ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ। সম্মেলনটি চলতি বছর (২০২১ সালে) ১৯-২০ নভেম্বর সুইডেনে অনুষ্ঠিত হবে। সম্মেলন কর্তৃপক্ষ বৌদ্ধ স্কলার, শিক্ষক, বিজ্ঞানী, অনুশীলনকারী এবং বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের প্রতিনিধিদের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও সিভি আহ্বান করেছে।

সুইডেনে বৌদ্ধধর্মের উপর একাডেমিক পড়াশোনা বাড়ানোর আকাঙ্ক্ষার ষষ্ঠ আন্তর্জাতিক নর্ডল্যান্ড বৌদ্ধ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। এস্তোনিয়ায় অনুষ্ঠিত ২০০৭-১১ সালে অনুষ্ঠিত পাঁচটি সম্মেলনের সাফলতার ধারাবাহিকতায় এবার নর্ডল্যান্ডে হতে যাচ্ছে ৬ষ্ট কনফারেন্স।

আয়োজক চেয়ারম্যান মারজু ব্রোডার বলেন,- “ষষ্ঠ আন্তর্জাতিক নর্ডল্যান্ড বৌদ্ধধর্ম সম্মেলনের প্রধান লক্ষ্য হবে সুইডেনে বৌদ্ধধর্মের একাডেমিক পড়াশোনা আরো উন্নত করা এবং সুইডেন সহ উত্তর ইউরোপে বৌদ্ধ ধর্মের ইতিহাস এবং উপস্থিতি পর্যলোচনা করা।” তিনি আরো বলেন,- “এই সম্মেলন বৌদ্ধ ইতিহাস, দর্শন, গ্রন্থে অবদানের প্রস্তাবের পাশাপাশি বৌদ্ধধর্ম সম্পর্কিত যে কোনও বিষয়ের উপর প্রস্তাবের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।”

আন্তর্জাতিক নর্ডল্যান্ড বৌদ্ধধর্ম সম্মেলন প্রতিষ্ঠা করেছিলেন ভেলো ভার্টনু, যিনি বহু দশক আগে অন্যান্য নর্ডিক দেশের সহযোগিতায় একটি আন্তর্জাতিক বৌদ্ধ সিম্পোজিয়াম গঠন করার চেষ্টা করেছিলেন। তার এই প্রচেষ্টার ফলস্বরূপ ২০০৭-১১ এস্তোনিয়াতে পাঁচটি সিরিজ সম্মেলন হয়েছিল। এই সিরিজ সম্মেলনে নর্ডিকের সকল দেশ ও বৌদ্ধদের পাশাপাশি বাল্টিক, বুরিয়াটিয়া, জার্মানি, হাঙ্গেরি, ভারত, মঙ্গোলিয়া, নেপাল, রাশিয়া, এবং যুক্তরাজ্য, এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অনেক বিজ্ঞানি অংশ নিয়েছিল।

ব্রোডার ব্যাখ্যা করেন এভাবে, “নর্ডিক দেশগুলিতে বৌদ্ধধর্ম সম্পর্কে খুব কম গবেষণা হয়েছে- আমরা বলতে পারি যে পশ্চিমা বিশ্বে বৌদ্ধধর্মেরে ঐতিহাসিক আগমন নিয়ে গবেষণা এখনও শৈশবেই রয়ে গেছে। তাই এই সম্মেলনের প্রধান উদ্দেশ্য হল উত্তর ইউরোপের বৌদ্ধধর্ম সম্পর্কিত ইতিহাস, ব্যক্তি এবং ঘটনাবলী গবেষণা করা এবং স্বীকৃতি দেওয়া।

সম্মেলন কর্তৃপক্ষ নিচের বিষয় ‍গুলো আলোচনা করার জন্য অংশগ্রহনিচ্ছুক প্রতিনিধিদের আমন্ত্রণ জানিয়েছে।

  • স্ক্যান্ডিনেভিয়া/ইউরোপের বৌদ্ধধর্ম মধ্যে সম্পর্ক।
  • উত্তর ইউরোপে বৌদ্ধধর্মের প্রথম আগমন।
  • ঐতিহাসিক দলিলে বর্ণিত বৌদ্ধধর্ম।
  • আপনার নিজের দেশের পরিপ্রেক্ষিতে বৌদ্ধধর্ম ও বৌদ্ধদের মনোভাব, আচরণ, দৃষ্টিভঙ্গি।
  • বৌদ্ধধর্ম কীভাবে আপনার স্থানীয় সংস্কৃতি এবং মিডিয়ার প্রতিচ্ছবি হয়।
  • সংঘে নারীর সংগ্রাম ও অবস্থান।
  • প্রতিবেশী দেশের সাথে বৌদ্ধ সংস্কৃতির পার্থক্য এবং তাদের গ্রহণযোগ্যতা।
  • বৌদ্ধধর্ম এবং বিজ্ঞান।
  • সুইডেনে বৌদ্ধ স্কুল এবং ঐতিহ্য।
  • সুইডিশ বিজ্ঞান একাডেমি ও বিজ্ঞানীদের বৌদ্ধধর্মের প্রতি দৃষ্টিভঙ্গি।

যোগদান প্রস্তাবনা জমা দেওয়ার তারিখ:

চলতি বছরের (২০২১) ১৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে আপনার যোগদান ইচ্ছার প্রস্তাবটি মেইল করতে হবে।

কোথায় কিভাবে জমা দিবেন: আপনার কাগজপত্র জমা দেওয়ার জন্য আয়োজক কমিটির মেইল আইডি ও লিংক পেতে shimulios@outlook.com এখানে মেইল করুন। (স্পেমিং এডিয়ে চলার জন্য এখানে মেইল আইডি ও লিংক দেওয়া হল না। মেইল করার সময় অবশ্যই আপনার পেশা উল্লেখ করবেন।)

আপনি যদি সম্মেলনে যোগদানের জন্য নির্বাচিত হোন তাহলে আপনাকে ৩০ সেপ্টম্বর, ২০২১ এর মধ্যে জানিয়ে মেইল করা হবে। আপনি নির্বাচনী মেইল পেলে ৩১ অক্টোবর, ২০২১ এর মধ্যে তাদের চাহিদামত কাগজ পত্র প্রেরণ করতে হবে।

কী কী জমা দিতে হবে:

নিন্মলিখিত ডকুমেন্ট গুলো MS word বা RTF ফর্ম্যাট ফাইলে যথাযথ সময়ের মধ্যে প্রেরণ করতে হবে।

  • লেখক (নাম)
  • আপনি কনফারেন্সে কি হিসেবে যোগদান করতে চাইছেন।
  • ইমেল ঠিকানা
  • পেশার শিরোনাম
  • পেশা সম্পর্কিত বর্ণনা: ২৫০ শব্দের বেশি নয়।
  • ১০টি কীওয়ার্ড
  • সিভি/জীবন বৃত্তান্ত (সর্বোচ্চ ২ পৃষ্ঠা)

কাগজ উপস্থাপনার জন্য ৩০ মিনিট (প্রশ্নোত্তর সহ) সময় পাবেন। সম্মেলনে উপস্থাপিত হওয়ার কাগজপত্র সম্মেলনের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে। প্রেরিত কাগজপত্র অবশ্যই আগে অন্য কোথাও প্রকাশিত হয়নি এমন হতে হবে এবং আপনি নির্বাচিত হওয়ার পর আপনার কাগজপত্র অন্যান্য কোন মিডিয়ার মাধ্যমে প্রকাশ করা যাবে না।

আরো পড়ুন>>

বৌদ্ধ বার্তা

One thought on “যোগদান করুন সুইডেনের বৌদ্ধ কনফারেন্সে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!